ঢাবিতে কবিতার মাধ্যমে বর্ষবরণ: আয়োজন চোখ সাহিত্য সংসদ-এর

‘দৃষ্টিতে আগামী’  স্লোগান ধারণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্য সংগঠন ‘চোখ সাহিত্য সংসদ’-এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো “কবিতার চোখ” নামে কবিতা প্রদর্শনীর অনুষ্ঠান। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বরে অনুষ্ঠিত এই প্রর্দশনীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ প্রতিভাবান কবি ছাড়াও এই সময়ের প্রতিশ্রুতিশীল কবিরা অংশগ্রহণ করেন। কবিতা, অনুবাদ কবিতা ও কিশোর কবিতাসহ বিভিন্ন ধরণের  কবিতা স্থান পায় প্রদর্শনীতে। কবিতা প্রর্দশনীর সাথে সাথে আগ্রহী পাঠক ও শ্রোতাদের সাথে আয়োজকদের আড্ডায় দিনভর প্রাণবন্ত আড্ডা চলে টুকিটাকি।

প্রদর্শনীতে স্থান পায় কবি আলী হোসাইন, জব্বার আল নাঈম, রাসেল রায়হান, মাসুম মনোওয়ার, কালপুরুষ, সাবিদিন ইব্রাহিম, সুজন শান্তনু, শাহাদাৎ শাহেদ, সাফি উল্লাহ্, কামরুল কাইস, মহসীন আলম শুভ্রসহ ৩০ জন কবির কবিতা।

দর্শনার্থীদের অনেকেই এই আয়োজন সম্পর্কে মতামত জানিয়েছেন। মো. আব্দুল্লাহ্ আল মামুন লিখেছেন, আমি কবি নই,কিন্তু কবিতার জন্য দাড়িয়ে যাই।

আয়োজকদের একজন সুজন শান্তনু বলেন, ‘আমরা সাধারণত চিত্রশিল্প প্রদর্শনীর কথা শুনি; কিন্তু কবিতা প্রদর্শনীর এই আয়োজনের সাথে অনেকেই পরিচিত নয়। পহেলা বৈশাখে আমরা কুঁড়েঘরে গ্রাম্য পরিবেশ সৃষ্টি করে কবিতা প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি, এতে অনেকে আগ্রহভরে কবিতা পড়ছেন, মন্তব্য করছেন যা আমাদের পুলকিত করেছে।’ চোখ সাহিত্য সংসদের সম্পাদক শাহাদাৎ শাহেদ বলেন, ‘কবিতাকে মানুষের কাছাকাছি পৌছে দেয়ার জন্য আমাদের এই প্রচেষ্টা। আমাদের এখানে অনেকে আসছেন, কবিতা পড়ছেন, কবিতার প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এতে বোঝা যায় শিল্প সাহিত্য থেকে মানুষ দূরে সরে যায়নি, তাদের কাছে ভালো লেখা নিয়ে যেতে পারলে তারা তা গ্রহণ করে। পহেলা বৈশাখে আমাদের ক্যাম্পাসে চিত্তবিনোদনের জন্য অনেক আযোজন হয় কিন্তু সৃজনশীল কাজকে মানুষের সামনে নিয়ে আসা কমই হয়, তাই আমাদের এই আয়োজন।’

Related Posts

About The Author

Add Comment