ফ্রানজ কাফকার “মেটামরফসিস ” এক ভিন্নধর্মী গল্প

  • সেলসম্যান গ্রেগর সামসা একদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে নিজেকে আবিষ্কার করে একটি বড় পোকা হিসেবে যার অসংখ্য ছোট ছোট পা। গ্রেগর অনেক বছর ধরেই সকালে নিয়মিত কাজে যায়, টাকা আয় করে বাবার ধারদেনার বোঝা কমায়। আজ সকালে ত সে আর উঠতেই পারছে না। সবাই ডাকাডাকি করছে গ্রেগর ও উত্তর দেয়ার চেষ্টা করছে কিন্তু তার মুখ থেকে মানুষের শব্দ আর বের হয়না বেরুচ্ছে পোকার সাউন্ড । পরে সবাই আবিষ্কার করে গ্রেগরের প্রকৃত ভয়ংকর অবস্থা। তারপর তাকে নিয়ে পরিবারের টানাপেড়েন শুরু হয়, শুরু হয় গ্রেগরের দুঃসহ যন্ত্রনা। যেই বোন যেই বাবা যেই পরিবার তাকে আগে এত ভালবাসত সেই তারাই এখন তাকে পচা খাবার দিচ্ছে মাঝে মাঝে তার আবদ্ধ ঘরে খাবার দিচ্ছেও না। তার ঘর থেকে আসবাবপত্র সরিয়ে নেয়া হল। তার ঘরে এখন ময়লা আবর্জনা ফেলা হয় অথচ এখনো এখানে গ্রেগর /পোকা আছে। একদিন বিকট দর্শন গ্রেগরকে দেখে বাড়ির ভাড়াটেরা ভাড়া না দিয়ে চলে যায়। পরিবার এই ঝামেলা (গ্রেগর) থেকে মুক্তি পেতে চায়! মানসিক যন্ত্রনা নিয়ে গ্রেগর মারা যায়।

    অর্থাৎ এই দুনিয়া চরম স্বার্থপর দুনিয়া। যখন মানুষের প্রোডাক্টিভিটি আছে তখন সবাই দাম দেয় আর যখন তা হারিয়ে যায় তখন কেউ দাম দেয় না, অথবা হয়ত না দিতে বাধ্য হয়। দুনিয়ার নিয়মই এমন কঠিন। কাফকা এখানে পোকা বানানোর মাধ্যমে বুঝিয়েছেন ক্ষমতা হারানো বা প্রয়োজনীয়তা নষ্ট হওয়া । যেটার পরে কেউ দাম দেয় না। এটার মার্ক্সসিজম ক্রিটিসিজম, এক্সিসটেনসিয়াল ক্রিটিসিজম সহ অনেক ক্রিটিসিজম আছে। কাফকা চিন্তার দিকটা খুলে রেখেছেন।

 লেখক :9788467007220 Mohammad Nurul Ameen

Related Posts

About The Author

Add Comment