বছরের প্রথম আলোচনাঃ নতুন সময়ে নতুন শপথ

পুরোনো বছরের হিশেব-নিকেশ আর নতুন বছরের কর্মপরিকল্পনা সামনে রেখে অনুষ্ঠিত হলো বাংলাদেশ স্টাডি ফোরাম-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার প্রথম আলোচনা সভা। সভ্যদের বুদ্ধিদীপ্ত অংশগ্রহণে বেশ জমে উঠেছিলো ডাকসু-র পশ্চিম কোণ। প্রধান সমন্বয়ক সাগর বড়ুয়ার পরিচালনায় নির্বাচিত সদস্যগণের অনুভূতি প্রকাশের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অতঃপর প্রত্যেকের কাছে যার যার দায়িত্ব স্পষ্ট করে দেয়া হয়। সভ্যরা সাগ্রহে দায়িত্ব বুঝে নেবার পাশাপাশি নতুন বছরের জন্য তুলে ধরেন নতুন নতুন ধারণা। ওয়ালী উল্লাহ ওয়ার্কশপের উপর জোর দেন এবং প্রতি মাসে অন্তত দুটি ওয়ার্কশপের দাবি জানান। অনুরূপভাবে চয়ন বড়ুয়া বিজ্ঞান অনুষদের সম্পৃক্ততা দৃঢ় করার পরিকল্পনা জানান। এদিকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী ছাত্রী মাহফুজা মাহদী দেন সাপ্তাহিক লেকচার, বুক টক এবং আইডিয়া শেয়ার-কে আরো সাফল্যমণ্ডিত করণে সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি। তানজীর সরকার বরাবরের মতোই প্রচারণার গুরুত্ব দেন। ইমরান নাফিসের কথায় উঠে আসে নতুনত্ব আর বৈচিত্র্য দানের প্রসঙ্গ। অরণ্য আরিফ কিন্তু সর্বাধিক প্রাধান্য দিতে চান মানোন্নয়নের দিক টাকেই। গুরুত্ব পায় অন্যান্য অনেক প্রসঙ্গ-

১. লেকচার, বুকটক এমনকি আড্ডার ডকুমেন্টেশন।
২. লেকচার বাছাইয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা এবং উপস্থাপনার মান বৃদ্ধি।
৩. ক্লাসিক পাঠে আগ্রহী করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ।
৪. চিন্তার চর্চা বৃদ্ধির জন্য Seeking thinkers এর মতো নতুন কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ।
৫. দর্শন পাঠের জন্য বিশেষভাবে A night with philosophy আলোচনা চক্র চালু করা।
৬. লেকচার এবং বুকটকে প্রত্যেক বিষয়কে মাথায় রাখা। অর্থাৎ ইতিহাস, দর্শন, রাজনীতি, সাম্প্রতিক পরিস্থিতি, বিজ্ঞানসহ জ্ঞানের প্রত্যেক শাখাকে রাখার প্রচেষ্টা প্রদান।
৭. মাসে অন্তত একটি বিশেষ লেকচারের ব্যবস্থা।
৮. সর্বোপরি স্টাডি ফোরামের কর্মপ্রণালীতে বিগত বছরের চেয়ে কয়েক গুণ গতি ও মান বৃদ্ধি করা।

সদস্যরা স্টাডি ফোরামের দায়িত্বকে সর্বাধিক প্রাধান্য দানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হবার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের যবনিকাপাত ঘটে। তারপরেও সাইকোলজিক্যাল গেম- গল্প বলার ভেতর দিয়ে আনন্দময় এবং স্মরণীয় করে রাখা কিছু মূহুর্তের স্মৃতি মনে গেঁথে নিয়ে ঘরে ফেরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্টাডি ফোরাম। নতুন সময়ে নতুন উদ্যমে নিজেকে নতুনভাবে প্রমাণ করার প্রতিশ্রুতি।

Related Posts

About The Author

Add Comment