দিনের প্রথম ঘন্টায় যে ৫টি কাজ করেন সফলতমরা

আপনি কি জানেন আপনি সফল হবেন না ব্যর্থ হবেন তা নির্ভর করে দিনের প্রথম ঘন্টাটি কিভাবে কাটান তার উপর? বিশেষজ্ঞদের মতে সফলতম ব্যক্তিদের মধ্যে এটা কমন যে তারা দিনের শুরুতেই এ পাঁচটি কাজ করেন। এর ফলে সারাদিন তারা থাকেন সতেজ ও কর্মক্ষম। আপনিও তাদের মতে হতে চাইলে এটা অনুসরণ করতে পারেন।

সিভি-লাইব্রেরি এর প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক লি বিগিনস্ বলেন: ‘আপনি যদি নিজেকে একটি কর্মক্ষম ও সফল দিনের জন্য প্রস্তুত রাখতে চান তাহলে যে কাজগুলো করতে চান সেগুলোর জন্য আপনার শক্তি ও ফোকাস ধরে রাখতে হবে।’
তিনি মনে করেন সফলতম লোকেরা দিনের প্রথম ভাগে এ কাজগুলো করতে ভুল করেন না।

১. কাজের শুরুতে একটু শারীরিক কসরৎ করে নিন:

দিনের দায়িত্ব নেওয়ার আগে শরীরটাকে একটু ঝালাই করে নেওয়া দরকার। হতে পারে সেটা ১৫ মিনিটের দৌড়। কিন্তু সেটা আপনাকে সারাদিন অনেক সচল রাখবে। রিচার্ড ব্রানসন দিন শুরু করেন কিছুক্ষণ সাইকেল চালিয়ে। স্কয়ার এর প্রধান নির্বাহী ও টুইটারের সহ প্রতিষ্ঠাতা প্রতিদিনই জগিংয়ে ছয় কিলোমিটার দৌড়ান। ক্লিক মিডিয়া গ্রুপের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ক্যাথরিন পাওয়ার প্রতিদিন জিমে যেতে ভুল করেন না।

২. স্বাস্থ্যকর নাস্তা করুন:

আপনি যদি শরীরে ঠিকমতো জ্বালানী না দেন তাহলে কিভাবে কর্মক্ষম থাকার আশা করতে পারেন? অফিসের কাজে হাত দেওয়ার আগেই একটি স্বাস্থ্যসম্মত নাস্তা সেড়ে নিন। আপনি সকাল সকাল যদি একটা হেভি নাস্তা করেন তাহলে আপনার কর্মক্ষমতা সবচেয়ে বেশি থাকবে পুরোটা দিন। সবচেয়ে সফল ব্যক্তিরা তাদের প্রথম খাবারটার বেলাতে সবচেয়ে বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্তটা নিয়ে থাকেন। সকালবেলা ভার্জিন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্রানসন সাধারণত উচু ভিটামিন ও আঁশসমৃদ্ধ ফলের সালাদ ও বিভিন্ন খাদ্য উপাদান মিশ্রিত মুয়েসলি নামে একটি খাবার খান। টুইটারের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডর্সির নাস্তাতে থাকবেই কয়েকটা সেদ্ধ ডিম।

৩. আপনার ইনবক্স পরিস্কার করুন:

অনেকেই বলে থাকে দুপুর পর্যন্ত ইনবক্স এর মেইলগুলো রাখতে পারেন কিন্তু দিনের শুরুতেই ইনবক্স পরিস্কার করলে আপনি অহেতুক চাপ থেকে বেঁচে যেতে পারবেন। তবে জরুরী মেইলের উত্তরটাও দিয়ে ফেলতে পারেন। ইনবক্স যদি পরিস্কার রাখেন তাহলে আপনি অনেক সময় অপচয় থেকে বেঁচে যেতে পারবেন। কারণ ইনবক্সে প্রচুর মেইল থাকলে আপনার জরুরী মেইল খুঁজে পেতে কষ্ট হতে পারে বা অহেতুক মেইল দেখতে গিয়ে মনোযোগ হারাতে পারেন।

৪. দিনের লক্ষ্য ঠিক করুন:

আপনার ইনবক্স পরিস্কার করার পর দিনে কি করবেন তার স্পষ্ট লক্ষ্য স্থির করুন। হউক না সেটা কোন চিত্র প্রদর্শনীতে যোগ দেওয়া, কোন সহকর্মীর সাথে মিটিং, আসন্ন প্রেজেন্টেশনের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া। দিনের শেষে আপনি কি অর্জন করতে চান তা যদি স্পষ্ট থাকে তাহলে আপনি লক্ষ্যে অটল থাকবেন এবং সবচেয়ে বেশি কর্মক্ষম থাকবেন।

৫. আপনার অগ্রাধিকার তালিকা করুন:

একটা টু ডু লিস্ট করার পরও আপনি ঝামেলায় পড়তে পারেন যদি না আপনি প্রায়োরিটি লিস্ট বা অগ্রাধিকার তালিকা না করেন। গুরুত্ব ও অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে আপনি সে তালিকাটি করুন। এর মাধ্যমে আপনি সবচেয়ে বেশি কর্মক্ষম এবং মনোযোগী থাকতে পারবেন।

বিয়াংকা লন্ডন, সহকারী সম্পাদক-ডেইলি মেইল
অনুবাদ: সাবিদিন ইব্রাহিম

Related Posts

About The Author

Add Comment