সান জু’র ‘দ্য আর্ট অব ওয়ার’ কেন পড়বো

বই  এর  নাম যেহেতু আর্ট ওব ওয়ার তো বুঝতেই পারছেন কাহিনী কি হতে পারে! ইতোমধ্যেই হয়তো এটা ভাবা শুরু করেছেন “যুদ্ধ-বিগ্রহ” নিয়ে লেখা হবে হয়তো। এটা ভেবে থাকলে ঠিকই ধরেছেন। আর কিছু যদি ভাবনাতে না এসে থাকে তবে আমি তো বলতেই এসেছি কাহিনী টা আসলে কি😃

আর্ট অব ওয়ার অনুবাদ করলে ঠিক কি দাড়াচ্ছে বলুন তো?

রণনীতি? যুদ্ধের কলা-কৌশল?

হ্যা ঠিক তাই প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে চীনা সমরবিদ লিখেছিলেন যুদ্ধে বিজয়ী হবার কলা কৌশল। আর সেটিই আর্ট অব ওয়ার।

উল্লেখযোগ্য কিছু নীতি / কলা-কৌশল

১.একজন দক্ষ সেনা নায়ক হলেন রাষ্ট্রের পিলার। কারন তার হাতই রাষ্ট্রের টিকে থাকা নির্ভর করে।

২. যুদ্ধের ময়দানে সেনানায়ককে হতে হবে কৌশলী ও কূটচালে পারদর্শী। সোজা কথা গুটিবাজি করতে হবে! বুঝা গেছে তো?

৩.দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধ দক্ষ সেনানায়ক এড়িয়ে চলবে। কেননা ইতিহাস বলে দীর্ঘ সময় ধরে চলা যুদ্ধে রাষ্ট্রের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে।

রাশিয়া যখন ১ম বিশ্ব যুদ্ধে জড়িয়ে পরেছিলো তখন অভ্যন্তরীণ রাজনীতির টালমাটাল অবস্থা দেখা দিলো,দ্রব্য মূল্যের দাম বৃদ্ধি পেলো।  রাশিয়া অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হলো। আর ঠিক ঐ সময়েই ঘটে যায় ইতিহাসের স্মরণীয় আরেকটি বিপ্লব ‘রুশ বিপ্লব’।

দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধ দক্ষ সেনানায়ক এড়িয়ে চলবে। কেননা ইতিহাস বলে দীর্ঘ সময় ধরে চলা যুদ্ধে রাষ্ট্রের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে।

৪.শত্রুর পরিকল্পনা সম্পর্কে আগ থেকে জানা। পরিকল্পনা করে হঠাৎ আক্রমন করা।

যেমনটা করেছিলেন বখতিয়ার খিলজী। ১৭ জন সৈন্য নিয়ে বাংলা দখল!

৫. ধ্বংসযজ্ঞ না চালিয়ে শত্রু দেশের পুরোটা দখল করা। উপর্যুক্ত উদাহরনটি এ ক্ষেত্রে ও প্রযোজ্য।

৬.সৈন্যদের কে পুরস্কৃত করতে হবে উদ্দীপনা বাড়ানোর জন্য। যেমনটা করতেন নেপোলিয়ন।

৭. সৈন্য দলের মধ্যে শৃঙ্খলা বজার রাখতে হবে।

‘জীবন মানে যুদ্ধ’ আর যুদ্ধের ময়দানে বীরের মতো যুদ্ধকরার কৌশল আপনাকে জানতেই হবে।

এরকম আরো শতনীতি রয়েছে সানজুর আার্ট অব ওয়ার এ।

দ্য আর্ট অব ওয়ার মূল লেখক: সান জু অনুবাদ : সাবিদিন ইব্রাহিম প্রকাশনী: ঐতিহ্য মূল্য: ১৫০ টাকা

সানজু বলেছেন এ নীতি সমূহ অনুসরণ করলে যুদ্ধে জয় অনিবার্য। আর অনুসরণ না করলে কি হবে বুঝতেই পারছেন ! বলার দরকার নেই।

হাজার বছরের পুরনো এ যুদ্ধনীতি কেনই বা পড়বেন? কি লাভ হবে এটা পড়ে? বুঝতে পারছেন না তো? লাভ-ক্ষতির হিসেব বই পড়ার আগেই কষতে হয়না।

যদিও বইটি পড়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত ভাবছিলাম কেন এটা পড়বো?  যুদ্ধের নীতি জেনে আমার কাজ কি? এসব না জেনেও তো দিব্যি ভালো আছি।

না মশাই! আপনাকে এ যুদ্ধনীতিই জানতেই হবে বর্তমান এ কম্পিটিটিভ ওয়ার্ল্ড এ টিকে থাকতে হলে। আপনি জানবেন আপনার নিজের জন্যই।

আচ্ছা জীবন মানে কি?

অনেকেই অনেক কিছু বলবেন জানি।

‘জীবন মানে যুদ্ধ’ আর যুদ্ধের ময়দানে বীরের মতো যুদ্ধকরার কৌশল আপনাকে জানতেই হবে। এই জীবন যুদ্ধে টিকে যেতে পারলেই আপনি বিজয়ী। আপনার জীবনে সফলতা অনিবার্য  সত্য রূপে ধরা দিতে বাধ্য থাকবে। আর যদি না জানেন তবে কি হবে?  আহা!  ব্যর্থতা আর পরাজয়ের গ্লানিতে পর্যবসিত হবে আপনার রঙিন জীবন।

অর্থাৎ জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে যেকোন সিদ্ধান্ত গ্রহণের পূর্বে কৌশলী হওয়া কি বাধ্যতামূলক নয়?

আচ্ছা ধরুন, আপনি – আমি যে সমাজে বাস করছি এখানে কি সকলেই আমাদের শুভাকাঙ্খী? কেউ কি আপনার অনিষ্ট চায়না?  একটু সময় নিয়ে ভাবুন মুখোশের আড়ালে কে আপনার শত্রু আর বন্ধু?

আর শত্রুকে সঠিক উপায়ে কুপোকাত করতে চান তো বা শত্রুর আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করতে চান?

সানজুর  ‘দ্য আর্ট অব ওয়ার’ তো আপনার জন্যই!

শেহনাজ  আখন্দ নীলা

শিক্ষার্থী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Related Posts

About The Author

Add Comment