সৈয়দ হকের অকাল প্রয়াণ!

মার্জিনে মন্তব্য

লেখালেখির বেসিক কিছু কায়দা কানুন অল্প হলেও সৈয়দ শামসুল হকের কাছ থেকে শিখেছি।

এই বহুমুখী প্রতিভার অকাল প্রয়াণে বাংলা সাহিত্য এক সুনিপুণ শিল্পী এবং ঐশ্বর্যময়

ভাষার কারিগরকে হারালো।

রবীন্দ্রনাথের মৃত্যুতে বুদ্ধদেব বসু লিখেছিলেন ‘Tagore died an immature death’.

রবীন্দ্রনাথের শেষ বয়স অবধি তার কলম থামেনি। শুধু পুরাতনের পুনরৎপাদন নয়, নব নব ফুলের প্রস্ফূটন ঘটাচ্ছিলেন ঠাকুর। এ কারণে রবীন্দ্রনাথের মৃত্যুটা তার বিদ্রোহী সমালোচক, প্রিয়ভাজন উত্তরসুরী লিখতে বাধ্য হয়েছিলেন ‘ঠাকুর অকালপ্রয়াণ করেছেন।’

সৈয়দ শামসুল হককে কাছ থেকে বেশ কয়েকবার দেখা হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে, কুশল বিনিময় হয়েছে, হক পত্নী আনোয়ারা সৈয়দ হকের সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাকিম চত্তরে চা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম জীবনে (সেই ২০০৮ সালে) পুরনো মানিব্যাগে সৈয়দ হকের অটোগ্রাফ নিয়েও রেখেছি আর ওনার কবিতা ও ছোটগল্প মনোযোগ দিয়ে পড়েছি। মার্জিনে মন্তব্য কয়েকবার পড়া বই। লেখালেখির বেসিক কায়দা কানুন শেখার জন্য বাংলায় একটি অসাধারণ বই। এবং বাংলা ভাষার সকল তরুণ লেখকের অবশ্যপাঠ্য হওয়ার মতো একটি বই।

সৈয়দ হক বয়সে বুড়ো হলেও শেষ অবধি লেখনীতে ছিলেন চিরতরুণ। বুদ্ধদেব বসুর মতো বলতে হয়- Syed Shamsul Haque died an immature death!

 

Related Posts

About The Author

Add Comment