জিটিসি’তে ১৫ তম পাব‌লিক লেকচার অনুষ্ঠিত

আলোচনা চলছে ..

বাংলাদেশ পাঠ উৎসবকে সামনে রেখে বাংলা‌দেশ স্টা‌ডি ফোরাম, সরকা‌রি তিতুমীর ক‌লে‌জ চ্যাপ্টারের ১৫ তম পাব‌লিক লেকচার গত শুক্রবার সফলভা‌বে সম্পন্ন হ‌য়ে‌ছে।
লেকচারে অংশগ্রহণ কর‌তে পে‌রে নি‌জে‌কে ধন্য ম‌নে কর‌ছি। কেননা, লেকচার‌টি ছিল আমা‌দের অ‌স্তিত্ব‌কে নি‌য়ে, আমা‌দের দেশ‌কে নি‌য়ে, আমা‌দের জা‌তি‌কে নি‌য়ে, আমাদের পূর্বপুরুষ‌দের নি‌য়ে।

কাইয়ুম ভাই‌কে অ‌নেক ধন্যবাদ, তার ব্যস্ততম সময়ের ম‌ধ্যেও বাংলা‌দেশ পাঠ উৎসব এ আমা‌দের একটি চমৎকার সকাল উপহার দেওয়ার জন্য। ‌

এবারের লেকচার‌টির বিষয় ছিল বাংলাদেশ পাঠ উৎসবের জন্য নির্বাচিত গঙ্গাঋ‌দ্ধি থে‌কে বাংলা‌দেশ-মুহাম্মদ হা‌বিবুর রহমান। বইটির উপর ।

প্র‌ত্যেকটি মানু‌ষেরই তার জা‌তি সম‌ন্ধে ধারণা থাকা আবশ্যক। কেউ য‌দি তার নি‌জের প‌রিচয় না জা‌নে, তাহ‌লে সে বিশ্ব‌কে জান‌বে কি ক‌রে! বাঙা‌লি জা‌তির উৎপ‌ত্তি কিভা‌বে? অন্যান্য জা‌তি যখন আমা‌দের অ‌শি‌ক্ষিত, মূর্খ, চাষাভূষার জা‌তি ব‌লে গা‌লি দেয়, তখন আমা‌দের ম‌নে হয়‌তো ক্ষো‌ভের জন্ম হয় কিন্ত আমারা অপমান‌টি মে‌নে নেই। কিন্ত আমরা কখনও কি জান‌তে চেষ্টা করেছি কথাটা কতটুকু সত্যি?
বর্তমা‌নে পৃ‌থিবী‌র যেমন উৎকৃষ্ট জায়গা ধরা হয় USA ও UK কে, তৎকালীন সম‌য়ে পৃ‌থিবীর স্বর্গ বলা হ‌তো আমা‌দের এই বাংলা‌কে। তাহ‌লে কথা‌টি কি কেবল প্রবাদবাক্যই ছিল? অবশ্যই না!

তৎকা‌লিন সম‌য়ে বাংলায় বা‌ণি‌জ্যের কথা শোনা যায়। পর্তু‌গিজ, ডাচ বা ব্রি‌টিশ‌দের আমা‌দের বাংলায় আগমন ঘ‌টে‌ছিল কেন? সবাই ই কিন্ত বা‌ণি‌জ্যের উ‌দ্দে‌শ্যে এ‌সে‌ছিল। তাছাড়া প্রাচীন মিশ‌রের মিউ‌জিয়া‌মে এখনও মস‌লিন কাপ‌ড়ের অ‌স্তিত্ব মি‌লে, কিন্ত আমা‌দের এই বাংলা ছাড়া কোথাও এখনও মস‌লি‌নের উৎপ‌ত্তি বা তৈ‌রির কথা শোনা যায় নি। তাহ‌লে পূ‌র্বে যে আমা‌দের জা‌তি ব্যবসা-বা‌ণি‌জ্যে সমৃদ্ধি জা‌তি ছিল তা আর বলার অ‌পেক্ষা রা‌খে না।

ইং‌রেজরা আমা‌দের অজ্ঞতা‌কে কা‌জে লা‌গি‌য়ে আমা‌দের বাংলায় আগমন ক‌রে। আর এই উপমহা‌দে‌শে শাসক এবং প্রজা‌দের ম‌ধ্যে সম্পর্ক ছিল খুবই খারাপ, যা‌কে হা‌তিয়ার ক‌রে ব্রি‌টিশরা এই বাংলায় প্র‌তিষ্ঠা লাভ ক‌রে। আমরা জা‌নি গণত‌ন্ত্রের ধারক বা বাহক ব্রি‌টেন বা রা‌শিয়া। কিন্ত আনুমা‌নিক ৭০০ খ্রিষ্টা‌ব্দে আমাদের এই বাংলায় গণত‌ন্ত্রের বিকাশ ঘ‌টে‌ছিল রাজা গোপাল‌কে সবার মতাম‌তের ভি‌ত্তি‌তে নির্ব‌াচনের ভি‌ত্তি‌তে, যাকে গণত‌ন্ত্রের সূচনা বলা যায়।

আমা‌দের এই উপমহা‌দে‌শে বৌদ্ধ ধ‌র্মের উৎপ‌ত্তি হওয়া স্ব‌ত্ত্বেও কেন এখা‌নে বৌদ্ধ ধ‌র্মের প্রসার ঘ‌টে‌নি? আমরা এখনও কিছু সাংস্কৃ‌তিক অনুষ্ঠান উৎযাপন ক‌রি, যেগু‌লি হিন্দু ধর্ম থে‌কে ধার করা হ‌য়ে‌ছে ব‌লে আমা‌দের ধারণা। যেম‌ন প‌হেলা বৈশাখ। কিন্তু কথাগু‌লি কতটুকু স‌ঠিক বা ভুল?
বাংলা‌দে‌শের উৎপ‌ত্তি, সেনাবা‌হিনীর উৎপ‌ত্তি, বাংলা‌দে‌শের মু‌ক্তিযুদ্ধ, মু‌ক্তিযু‌দ্ধে ভারত কি কেবলমাত্র স্বা‌র্থের জন্যই আমা‌দের সাহায্য ক‌রে‌ছি‌ল, না নিঃস্বার্থভা‌বেও সাহায্য ক‌রে‌ছিল? এমনই অসংখ্য বিষয় ছিল পু‌রো আ‌লোচনায়।

তাছাড়া বাংলা‌দে‌শের অর্থনীতি, রাজনী‌তি, সংবিধান, সংস্কৃ‌তি, শিক্ষা ইত্যাদি বিষয় ছিল আলোচনার মূল বিষয়বস্তু।

লেকচা‌রে অংশগ্রহণকারী সবাই‌কে অ‌নেক ধন্যবাদ, যা‌দের মা‌ধ্যমে লেকচার‌টি প‌রিপূর্ণতা লাভ ক‌রে‌ছে। আর সা‌বি‌দিন ভাই এর কথা না বল‌লেই নয়, ক‌য়েকটা লেকচা‌রে আমরা তা‌কে মিস ক‌রে‌ছি। আজ তার উপ‌স্থি‌তি আমা‌দের লেকচার‌কে সমৃদ্ধ ক‌রে‌ছে। কাইয়ুম ভাই এবং সা‌বি‌দিন ভাই‌দের বারবার আগমন আশা ক‌রি। সবাই‌কে অ‌নেক ধন্যবাদ।

জারিফ হোসেন
হেড অব প্রোগ্রাম এন্ড প্লানিং
বাংলাদেশ স্টাডি ফোরাম
সরকারি তিতুমীর কলেজ

বক্তা ও শ্রোতাবৃন্দ

Related Posts

About The Author

Add Comment